কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-৬

466
AdvertisementCBN-Leaderate

[কবি, সাংবাদিক এবং গবেষক সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে নানামুখী গবেষণা করেছেন। তাঁকে নিয়ে কবিতা লিখেছেন, গল্প লিখেছেন, নাটক লিখেছেন, প্রবন্ধ লিখেছেন, সম্পাদনা করেছেন। রচনা করেছেন ৬/৭টি গ্রন্থ। এর মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য- ‘কানাডার কাশিমপুরে খুনি নূর চৌধুরী’। এই বইটি খুনি নূর চৌধুরী সম্পর্কে তথ্যপ্রমাণসহ এক অজানা দলিল। বইটির তিনটি সংস্করণ বের হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে সেই বইয়ের কিছু নির্বাচিত অংশ CBN24-এ ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করা হলো।  -সম্পাদক]

পর্ব-১ পড়ুন এই লিঙ্কে: কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-১
পর্ব-২ পড়ুন এই লিঙ্কে: কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-২
পর্ব-৩ পড়ুন এই লিঙ্কে: কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-৩
পর্ব-৪ পড়ুন এই লিঙ্কে: কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-৪
পর্ব-৫ পড়ুন এই লিঙ্কে: কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, পর্ব-৫

খুনি নূর চৌধুরীর আইনজীবী বারবারা জ্যাকম্যানের সাক্ষাৎকার

সিবিসি : আমি এ আলোচনায় আপনার উকিল বারবারা জ্যাকম্যানের কাছে জানতে চাই, যিনি আজ আমাদের সঙ্গে টরন্টো স্টুডিওতে আছেন। নূর চৌধুরীর স্ট্যাটাস এখন কোন অবস্থায় আছে?

জ্যাক : সে ইমিগ্র্যান্ট হওয়ার জন্য দরখাস্ত করেছিল তার প্রাক্তন কাউন্সিলর এর উপদেশ অনুযায়ী। কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি। এবং ভিজিটর ভিসা রিনিউ হয়নি, সেজন্য সে রেফুউজি ক্লেইম করেছে, কারণ সে ফিরে যেতে ভয় পাচ্ছিল। আমি বোঝাতে চাচ্ছি যে পাঁচ জনকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছিল তাতে তাকেও ফাঁসি দেওয়া হতো।

সিবিসি : তাদের ফাঁসি দেওয়া হয়েছিল গত বছর জানুয়ারিতে। তাদের ফাঁসি দেওয়ার আগেই সে আবেদন করেছিল। আমার মনে হয় তাদের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল।

জ্যাক : অবশ্যই। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশে স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ হয়েছিল। সেই যুদ্ধে নূর চৌধুরী ছিল একজন হিরো। চার বছর পর শেখ রহমান একনায়কতান্ত্রিক দল গঠন করেছিল। সে বিরোধী দলের লোকজনের ওপর অত্যাচার করেছিল। এবং সেটা ছিল একটি ইতিহাস। সেই সময় যারা সরকারের বিরুদ্ধাচরণ করেছিল তাদের ওপর অত্যাচার চালানো হয়েছিল। আমি দেখছি যে শেখ রহমানের বিরুদ্ধে যে ক্যু হয়েছিল তার সঙ্গে ….ইজিপ্টের মোবারক… লিবিয়ার গাদ্দাফির ক্ষমতা হারানোর বিষয়টিতে কোনো পার্থক্য নাই।

সিবিসি : কিন্তু তাদের কাউকেই হত্যা করা হয়নি।

জ্যাক : আমি সেটা জানি। মিলিটারির মাধ্যমে ক্যু হয়েছিল, যারা একটি গণতান্ত্রিক সরকার গঠন করতে চেয়েছিল।

সিবিসি : তারা প্রেসিডেন্টের বাড়িতে আক্রমণ করেছিল এবং পরিবারের সব সদস্যকে হত্যা করেছিল। এমনকি ১০ বছরের ছেলে যে কিনা সোফার পেছনে লুকিয়ে ছিল, তাকেও নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

জ্যাক : আমি বুঝতে পারছি, এটার কোনো অর্থ হয় না একটা বাচ্চাকে মেরে ফেলার। মিস্টার চৌধুরী সব সময়ই ঘোষণা দিয়েছে যে, সে নির্দোষ। প্রশ্ন হলো যে, সে কি ঠিক বিচার পাবে। আমি জানি তুমি আন্তর্জাতিক অ্যামেনেস্টির ওপর ফোকাস করবে।

কানাডা থেকে যারা মিস্টার নূর চৌধুরীর ব্যাপারে সাক্ষ্য-প্রমাণ দিয়েছে তারা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক। কারণ তারা মনে করে, নূর চৌধুরীকে ফেরত পাঠাতে সাক্ষী না দিলে তাদের ওপরও টর্চার করা করা হবে। এটা সঠিক বিচার নয়। সে এখানে থাকতে আগ্রহী। কারণ বাংলাদেশে গেলে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে।

সিবিসি : তার তো ডিপোর্টেশন অর্ডার হয়েছে। এটা কি সত্য? কবে থেকে সেটা?

জ্যাক : এটা ২০০০ সাল থেকে।

সিবিসি : কিন্তু এখনো সে এখানে?

জ্যাক : সে এখনো এখানে, কারণ সে ২০০৯ সালের মার্চ মাসে প্রি-রিমুভ্যাল রিস্ক এসেসমেন্টের জন্য দরখাস্ত করেছে। আমরা সরকারের কাছে লিখে আসছি যে ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্তের জন্য।

সিবিসি : প্রি-রিমুভ্যাল রিস্ক এসেসমেন্ট, এটার অর্থ কী?

জ্যাক : ‘নিজের দেশে ফিরে গেলে যদি কারো ফাঁসি হওয়ার ঝুঁকি থাকে’- এটা হচ্ছে এমন একটি আবেদনপত্র যার মাধ্যমে এ ধরনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়। এটাই হলো মূল কথা। কারণ কানাডার সুপ্রিম কোর্টের আইন হচ্ছে, কানাডা ফাঁসিকে সমর্থন করে না।

সিবিসি : মিস্টার চৌধুরী কি এখানে এভাবে থাকতে পারবে?

জ্যাক : এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি যে সে কানাডায় থাকতে পারবে। অন্যদিকে, কানাডার সুপ্রিম কোর্টের আইন হচ্ছে ব্যতিক্রম কোনো ঘটনা হলে, যেমন কেউ যদি আগের থেকে মৃত্যদণ্ডপ্রাপ্ত হয় এবং যুদ্ধাপরাধী হয়, এবং তার বিচারটি যদি সঠিক হয়, তাহলে তারা ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে। কিন্তু এই সরকারের ব্যপারে তারা হয়তো অন্য কিছু সিদ্ধান্ত নেবে, আমি আসলে জানি না।

সিবিসি : তুমি বলছ যে, মিস্টার চৌধুরী নির্দোষ?

জ্যাক : মিস্টার চৌধুরী মিলিটারি ক্যুতে তার অংশগ্রহণ অস্বীকার করেছে। আমি জানি যে, বাংলাদেশের সরকার তাকে ফেরত চাচ্ছে। কারণ সে ক্যু-এর কাজে সব অস্ত্র সরবরাহ করেছে।

সিবিসি : তাহলে তুমি বলছ যে সে নির্দোষ।

জ্যাক : হ্যাঁ। মিস্টার চৌধুরী আমাকে বলেছে যে সে নির্দোষ।*

*(দ্র. ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১১, সিবিসি রেডিও, টরন্টো, কানাডা এবং সাপ্তাহিক বেঙ্গলি টাইমস, টরন্টো, কানাডা।)

একাত্তরে নূর নারীঘটিত কেলেঙ্কারিতে জড়িত!

নূর মুক্তিযুদ্ধের সময় সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আতাউল গনি ওসমানীর বিশেষ সহকারী ছিলেন।  সেই সময় হাসপাতালে নারীঘটিত এক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়ে। পরে তাকে সেনাসদর থেকে বের করে যুদ্ধক্ষেত্রে পাঠিয়ে দেয়া হয়। [দ্রঃ একাত্তরের রণাঙ্গন অকথিত কিছু কথা/ নজরুল ইসলাম, প্রকাশকঃ অনুপম প্রকাশনী, প্রকাশকালঃ ১৯৯৯, ঢাকা। পৃষ্ঠাঃ ৪৯-৫১] এবং বর্তমান স্ত্রী রাশেদা খানম ছিলেন অন্যের বউ। আমার এক দূর সম্পর্কের আত্মীয়ের খালা ছিলেন রাশেদা। তাকে তিনি ভাগিয়ে বিয়ে করেছেন।

নজরুল ইসলামের ‘একাত্তরের রণাঙ্গন অকথিত কিছু কথা’ গ্রন্থ থেকে আরো জানা যায়, নূর, ডালিম, শাহরিয়ার, পাশা এবং হুদা পাঁচ জনই একাত্তরের পাকিস্থানী ফেরৎ সেনা কর্মকর্তা! যারা পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের ঘটনার কুচক্রি!

কানাডায় খুনি নূর চৌধুরী, শেষ পর্ব

https://www.facebook.com/cbn24.ca/
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
CBN-Leaderate