উৎসবমুখর পরিবেশে টরন্টোর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিস্তম্ভের ফলক উন্মোচিত

100
ছবি কৃতজ্ঞতা: শেখ আনোয়ার হোসেন
Advertisement

সিবিএন ডেস্ক:

দীর্ঘ ৭ বছরের নিরলস প্রচেষ্টায় টরন্টোর ডেন্টোনিয়া পার্কে নির্মিত স্থায়ী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিস্তম্ভের ফলক উন্মোচিত হল শনিবার ২৭ নভেম্বর।

এদিন স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় এটি আনুষ্ঠানিকভাবে সিটি কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়। সেই সাথে শহিদ মিনারের স্মারকলিপিও উম্মোচন করা হয়। এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ডেন্টোনিয়া পার্কের শহিদ মিনারের প্রাঙ্গনে। অনুষ্ঠানে স্মারকলিপি উন্মোচন করেন টরন্টো সিটি মেয়র জন টরি।

মাইনাস চার তাপমাত্রার মধ্যেও বিপুল সংখ্যক উপস্থিতির মধ্যে দিয়ে আনন্দঘন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশ হাই কমিশনার ড. খলিলুর রহমান, টরন্টোর মেয়র জন টরি, এমপি নাথানিয়েল এরিস্কিন-স্মিথ, এমপিপি রীমা বার্ন্স ম্যাকওয়াইন, এমপিপি ডলি বেগম, সিটি কাউন্সিলর ব্র্যাড ব্র্যাডফোর্ড, কাউন্সিলর গেরি ক্রোফোর্ড, প্রাক্তন কাউন্সিলর জেনেট ডেভিস, ব্যারিস্টার চয়নিকা দত্ত, ওটিআইএমএলডিএম এর ট্রেজারার মির্জা শাহীদুর রহমান, এবংওটিআইএমএলডিএম এর প্রেসিডেন্ট ম্যাক আজাদ।

অনুষ্ঠানের পর মেয়র জন টরি বলেন, আমরা বাংলাদেশিদেরকে এ রকম একটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির স্মৃতিস্তম্ভ উপহার দিতে পেয়ে আনন্দিত এবং গর্বিত। বাংলাদেশিরা অনেক ভালো মানুষ। আমি তাদেরকে বন্ধু হিসেবে পেয়ে গর্ববোধ করি।

হাই কমিশনার খলিলুর রহমান বলেন, আজ এই ঐতিহাসিক মুহূর্তে এখানে উপস্থিত থাকতে পেরে গর্বিত। তিনি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার দুই রূপকার রফিকুল ইসলাম ও আব্দুস সালামের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরেন।

ডলি বেগম বায়ান্নর ভাষা আন্দোলনের বীর শহিদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, আজ কানাডায় আদিবাসী শিক্ষার্থীদের নির্যাতনের যে ঘটনা জানতে পারছি, তা প্রায় একই সূত্রে গাথা! তিনি বাংলাদেশের প্রতি সম্মান জানিয়ে টরন্টো সিটি যে শহিদ মিনার স্থাপন করে ঐতিহাসিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো, সেজন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

এমপি নাথানিয়েল এরিস্কিন-স্মিথ বলেন, আমরা দীর্ঘ দিন ধরে কাজ করে এই শহিদ মিনার বাস্তবায়ন করেছি। যারা আর্থিক, শ্রম, এমনকি যারা প্রার্থণা করেও সমর্থন দিয়েছেন, সবাইকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

পুরো অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন ওটিআইএমএলডিএম এর পরিচালক রুমানা চৌধুরী।

মাতৃভাষা দিবস সৌধ নির্মাণে গঠিত সংগঠন The Organization For Toronto International Mother Language Day Monument Inc. (OTIMLDM Inc.) এর পক্ষ থেকে সকলকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

চলতি বছরের ১৩ মার্চ অর্গানাইজেশন ফর টরন্টো ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ ডে মনুমেন্ট ইনক (OTIMLD INC.) বর্তমান নুতন কমিটির একটি সাধারণ সভা আবুল আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় চেয়ারপার্সন চয়নিকা দত্ত, সৈয়দ আব্দুল গফফার, মির্জা শাহীদুর রহমান, মনির ইসলাম, জামাল হোসেন, আবুল আজাদ এবং ম্যাক আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

এই সভায় ঘোষণা দেওয়া হয় টরন্টোয় শহিদ মিনার নির্মাণ কমিটিতে (OTIMLD INC.) লুটেরা খ্যাত কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর সম্পৃক্ততা নেই।

এর আগে ১০ মার্চ জরুরি এক বোর্ড সভায় OTIMLD INC. কমিটি সংকুচিত করে সাতজনের কমিটি গঠনের প্রস্তাবে গঠনতন্ত্র সংশোধন প্রস্তাব গৃহিত হয়। সংশোধিত গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সাতজন পরিচালকের নুতন কমিটি গঠনের প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হয়।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email