কানাডায় ভুয়া সংবাদ শনাক্তের প্রযুক্তি নিয়ে আসছে ফেসবুক ও গুগল

672
AdvertisementLeaderboard

কানাডায় ভুয়া সংবাদ শনাক্তের প্রযুক্তি নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক ও গুগল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণায় অনলাইনে প্রচুর ভুয়া এবং বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রকাশ করা হয়। নভেম্বরে নির্বাচনের সময় সে মাত্রা চরমে পৌঁছায়।

কানাডাতেও একই ঘটনা ঘটছে জানিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম সিবিসি’তে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়, দেশটির কনজারভেটিভ পার্টির নেতা কেল্লি লেইটচের প্রচারণার ব্যবস্থাপক নিক কৌভালিসের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ আছে যে বামপন্থী ভোটারদের টানার জন্য জাস্টিন ট্রুডো সরকারের বিরোধী ভুয়া তথ্য অনলাইনে প্রচার করা হচ্ছে।

গত মাসে এক টুইটার বার্তায় তিনি বলেন, ট্রুডোর লিবারেল সরকার আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সহায়তা সংস্থাকে কয়েক বিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা দিয়েছেন যারমধ্যে ‘সন্ত্রাসী গোষ্ঠী’ হামাসকে দেওয়া হয়েছে ৩৫১ মিলিয়ন ডলার।

পরবর্তীতে তিনি ভুল স্বীকার করে বলেন, বামপন্থীদের খেপানোর জন্যই এ কাজ করা হয়েছে।

বিশ্বাসযোগ্য সংবাদ বোঝায় পাঠকদের সহায়তা করতে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্যে একটি প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে ফেসবুক এবং গুগল। কানাডার ব্যবহারকারীদের খুব শিগগিরই এ প্রযুক্তির সুবিধা দেওয়া হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠান ‍দুটি।

এক্ষেত্রে গুগল সত্যতা যাচাই এবং ফেসবুক ভুয়া সংবাদ চিহ্নিত করণের প্রযুক্তি ব্যবহার করছে।

এ বিষয়ে ফেসবুকের মুখপাত্র অ্যালেক্স কুচার্চকি বলেছেন, এটা কেবল শুরু কিন্তু এই প্রযুক্তিকে আরও চতুর করে তোলা এবং ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য কাজ করছি আমরা।

সিবিসি নিউজ
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email