কানাডার ফেডারেল নির্বাচনে অশোয়া থেকে লড়ছেন সানি মীর

70
AdvertisementLeaderboard

CBN Desk:

কানাডার ফেডারেল নির্বাচনে অশোয়া আসনে গ্রিন পার্টি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন তরুণ প্রজন্মের বাংলাদেশি-কানাডিয়ান সানি মীর। ঢাকার সিদ্ধেশরীর সন্তান সানি ইতোপূর্বে টরন্টো সিটির নির্বাচনে সিটি কাউন্সিলর পদে প্রার্থী হয়েছিলেন।

এবার কেন্দ্রীয় নির্বাচনে যুক্ত হলেন। গ্রিন পার্টি থেকে মনোনয়ন সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমার মনোনয়ন অনেকটা কাকতলীয়। আমার ম্যানেজার সফুরা খাতুন আমার পক্ষে প্রার্থী হওয়ার জন্য গ্রিন পার্টিতে আবেদন করেন। আমার সম্পর্কে খোঁজ-খবর, তথ্যাদি নিয়ে গত শুক্রবার গ্রিন পার্টি সবুজ সংকেত দিয়ে আমার নাম ঘোষণা করে। ফলে আমি কিছুটা অবাক হই। আমিও গ্রিন পার্টির রাজনৈতিক আদর্শে অনুপ্রাণিত। ফলে আমি এখন পুরোদমে রাতদিন নির্বাচনী প্রচার নিয়ে ব্যস্ত।’

অভিবাসী পিতামাতার সপ্তম সন্তান, সানি মীর অন্টারিওতে বড় হয়েছেন। বিখ্যাত ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক শেষ করার পর, তিনি ছাত্রজীবনে সঞ্চিত অর্থ দিয়ে নিজের ছোট ব্যবসা শুরু করেন।

কলেজে থাকাকালীন, তিনি একটি অলাভজনক সংস্থা শুরু করেছিলেন এবং অসংখ্য কমিউনিটি সদস্যদের সাহায্য করে যাচ্ছেন এর মাধ্যমে।

সানি মীর কঠোরভাবে একটি পরিবেশবান্ধব জীবনধারায় বিশ্বাস করেন । তিনি বলেল, ‘পৃথিবী আমাদের বাড়ি এবং আমাদের অবশ্যই এটি ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য বাসযোগ্য রাখতে হবে।’

পরিবেশ ছাড়াও গ্রীণ পার্টির ছয়টি মতাদর্শে বিশ্বাস করেন এবং মনে করেন আজকের পৃথিবীর তরুণ প্রজন্মের জন্য এ ধরনের আদর্শ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এর মধ্যে পরিবেশ, অহিংসা, সাম্য, সামাজিক মূল্যবোধ, নির্ভরযোগ্য জীবেনযাত্রা, গনতন্ত্র এবং ধর্ম- বর্ণ নির্বিশেষে সকলের সমান অধিকার এবং সুযোগ প্রদান নিশ্চিতকরনের লক্ষ্যে তিনি তাঁর লড়াই অব্যহত রাখছেন।

তিনি বলেন, ‘ইলেকশনে জেতাটা মূল লক্ষ্য নয়, বরং নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে নিজের মতাদর্শের সাথে লড়ে যাওয়াটাই তাঁর প্রধান উদ্দেশ্য।’

সানি মীর একজন প্রকৃত অনুপ্রেরণা প্রদানকারী পথ প্রদর্শক। তিনি মানুষের ক্ষমতায়নে বিশ্বাসী।

তিনি কেনেডিয়ান রেড ক্রস, মিলস অন হুইলস, হেবিটেট ফর হিউম্যনিটির মত সংস্হার সাথে সেচ্ছাসেবক হিসেবে আর্তমানবতার সেবায় কাজ করেছেন বহু বছর। তিনি একজন সফল সংগঠক, যিনি সাধারণ মানুষের কাতারে দাঁড়িয়ে তাঁদের জন্য কিছু করতে চান।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email