কানাডায় সংবাদপত্রের অভিনব প্রতিবাদ

AdvertisementCBN-Leaderate

সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল ||

কানাডার শীর্ষ স্থানীয় দৈনিকসহ ১০৫টি সংবাদপত্রের প্রথম পাতা ছিলো সম্পূর্ণ সাদা। পত্রিকার লোগো ছাড়া আর কিছুই ছিলো না। সংবাদপত্রের পৃষ্ঠা ফাঁকা প্রদর্শনের মূল কারণ ছিলো গুগল এবং ফেসবুকের বিরুদ্ধে ‘নিউজ মিডিয়া কানাডা’-এর প্রতীকী প্রতিবাদ।

জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের দুটি বৃহৎ কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান গুগল আর ফেসবুক তাদের মনোপলি ক্ষমতা ব্যবহার করে অনলাইন বিজ্ঞাপনের ৮০ শতাংশই নিজেদের পকেটে নিয়ে যায়। কানাডার সাংবাদিক এবং সংবাদপত্রের প্রকাশকেরা যে সংবাদ প্রকাশ করেন, কোনো পয়সা না দিয়েই সেগুলো ব্যবহার করে এই দুই বৃহৎ করপোরেট মুনাফা করছে। অথচ তারা এর জন্য কোনো মূল্য পরিশোধ করে না। অর্থ সংকটের জন্য সাম্প্রতিক বছরগুলিতে কানাডা জুড়ে স্থানীয় অনেক সংবাদপত্র বন্ধ হয়ে গেছে এবং শত শত সাংবাদিক তাদের চাকরি হারিয়েছেন।

এ ব্যাপারে ডেইলি টরন্টো স্টারের প্রধান নির্বাহী জন বয়ন্টন পাঠকদের উদ্দেশ্যে লিখেছেন, ‘আপনার প্রিয় পত্রিকার প্রথম পাতাটি যে খালি রাখা হয়েছে, সেটি ভুল করে নয়। আমরা ইচ্ছা করে, সিদ্ধান্ত নিয়েই এটি করেছি। এটি আসলে একটি সংবাদ পত্র বাঁচার কর্মসূচি, সংবাদপত্র রক্ষা আন্দোলনের কর্মসূচি’।

নিউজ মিডিয়া কানাডার প্রেসিডেন্ট জন হিন্ডস বলেছেন, গুগল আর ফেসবুক এখন কানাডার ইন্টারনেট প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে।

‘নিখোঁজ শিরোনাম’ অর্থাৎ সংবাদপত্রের প্রথম পৃষ্ঠা ফাঁকা, খবরহীন, ছবিশূন্য সমস্যাটির সমাধানের জন্য অটোয়াকে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে নিউজ মিডিয়া কানাডা সকল সংসদ সদস্যদের কাছে উন্মুক্ত চিঠি পাঠিয়েছেন।

https://www.facebook.com/cbn24.ca
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
CBN-Leaderate