কুইবেকে মসজিদে হামলার ঘটনায় আটক ২ জনই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র!

2027
AdvertisementLeaderboard

কানাডার কুইবেক শহরে মসজিদে হামলার ঘটনায় আটক দু’জনই স্থানীয় লাভাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। এমনটাই ধারনা করছে পুলিশ।

রোববার রাতের ওই হামলায় আটককৃতদের নাম অ্যালেক্সান্ডার বিশ্বনেট এবং মোহামিদ খাদির। তাদের বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। তাদের একজনকে ঘটনাস্থল থেকেই আটক করা হয়। আরেকজনকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার ধাওয়া করে আটক করে পুলিশ।

কুইবেক সিটি ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে চালানো হামলায় এ পর্যন্ত ছয়জন নিহত হয়েছেন।  আহত হয়েছেন ১৯ জন। এদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ বলছে, কী কারণে এই হামলা, তাদের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ আনা যায় কিংবা কখন তাদের আদালতে তোলা হবে সে বিষয়ে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

Screen Shot 2017-01-30 at 10.38.40 AMকুইবেক প্রদেশের প্রিমিয়ার ফিলিপ কুইলার্ড এই ঘটনাকে নির্দিষ্ট একটি কমিউনিটির (মুসলিম কমিউনিটি) ওপর নৃশংস হামলা বলে জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, এই হামলায় কেবল মুসলিম কমিউনিটি নয়, কুইবেক এবং পুরো কানাডার মানুষ মর্মাহত। কুইবেকের মুসলিম কমিউনিটির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমরা আপনাদের সাথে আছি। আপনারা আপনাদের বাড়িতেই আছেন। আপনাদের বাড়িতে স্বাগত জানাই।’

প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এ ঘটনাকে মুসলমানদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা বলে উল্লেখ করেন। এক বিবৃতিতে তিনি জানান, ‘কানাডার জাতি গঠনে মুসলিম-কানাডীয়রাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আমাদের কমিউনিটিতে, শহরে এবং দেশে এমন নির্বোধের মত আচরণের কোন স্থান নেই।’

রাত ৮টার কিছু আগে সংগঠিত এই হামলার সময় সবাই নামাজ পড়ছিলেন। পুরুষরা মসজিদের নিচের তলায়, এবং নারী ও শিশুরা ওপরের তলায় প্রার্থনারত ছিলেন।

লাভাল বিশ্ববিদ্যালয়, কুইবেক শহরের সকল মসজিদ, এবং অন্যান্য স্থানে নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সিবিসি নিউজ
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email