ট্রাম্প নামের টাওয়ার কিনতে চাচ্ছেন না কোনো নিলামকারী

1081
AdvertisementLeaderboard
টরন্টোর বে স্ট্রিটে অবস্থিত ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেল অ্যান্ড টাওয়ার

কানাডায় ট্রাম্পের নামে নির্মিত ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেল অ্যান্ড টাওয়ার নামের একটি ভবন নিলামে তোলার পর কোনো নিলামকারীই সেটি কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেননি।

কন্ডো এবং হোটেল রুম থাকা ওই টাওয়ারটির মালিকানা যাবে অখ্যাত ওই ভবন নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানটি সবচেয়ে বেশি যে প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিয়েছিল তাদের হাতে।

টরন্টোর বে স্ট্রিটে ৬৫ তলার ওই ভবনটিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কিংবা তার কোনো প্রতিষ্ঠানের অংশীদারিত্ব নেই। তবে ব্র্যান্ডিংয়ের জন্যই তার নামে নামকরণ করা হয়েছিলো বলে জানা গেছে।

ডেভলপমেন্ট কোম্পানি ট্যালন ইন্টারন্যাশনাল ভবনটি নির্মাণ করেছিলো, কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি গৃহীত ঋণ শোধ করতে ব্যর্থ হওয়ায় আদালতের আদেশে নিলামে তোলা হয় ভবনটিকে।

ভবনটিতে মোট ২১১টি হোটেল রুম ও ৭৪টি ফ্ল্যাট রয়েছে। ভাড়া দিয়ে বেশ আয় হবে এমন চিন্তা নিয়ে অনেক বিনিয়োগকারীই এখানে ফ্ল্যাট ও রুম কিনেছিলেন।

কিন্তু ভবনটির কাজ শেষ হওয়ার পাঁচ বছর পরও এর অর্ধেক ইউনিট অবিক্রিতই রয়ে গেছে। এরই মধ্যে হোটেল রুমের ভাড়া নির্ধারিত ভাড়ার চাইতে কমে গেছে ৩০ শতাংশ।

এদিকে ওই ভবনটিতে হোটেল রুম ক্রেতাদের অনেকেই বলছেন তাদেরকে ভুল বুঝিয়ে সেখানে রুম কেনানো হয়। আর এ অভিযোগের ভিত্তিতে তারা মামলাও করছেন। তবে নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানটি বলছে, এ মামলা ভিত্তিহীন।

নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান ট্যালন জেসিএফ এর থেকে ৩০১ মিলিয়ন ডলার ঋণ নিয়েছিল ভবনটি নির্মাণের জন্য। যদিও ঋণের মাত্র ৬০ শতাংশ ব্যয় হয়েছে ভবনটি নির্মাণে।

এরপর জেসিএফ ভবনটি বিক্রির জন্য নিলামের ডাক দেয় যেখানে প্রারম্ভিক মূল্য ধরা হলেছিল ২৯৮ মিলিয়ন ডলার। গতমাসে ওই নিলামের সময়সীমা শেষ হয়ে গেলেও কেউই ভবনটি কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেনি। সুতরাং এখন ভবনটির মালিকানা জেসিএফ এর হাতেই থাকছে।

সিবিসি নিউজ
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email