ট্রুডো-ট্রাম্প বৈঠক: অর্থনীতি-নিরাপত্তা বিষয়ে একমত, অভিবাসী নীতিতে দ্বিমত

766
AdvertisementLeaderboard

ওয়াশিংটনে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর বৈঠকে সামরিক সহযোগিতা, সীমান্ত রক্ষা এবং ব্যবসাক্ষেত্রে নারীদের ক্ষমতায়নের মতো বিষয়গুলোতে একমতে পৌঁছেছে দুই প্রতিবেশী দেশ। তবে অভিবাসী নীতিতে একমত নন দুই রাষ্ট্র প্রধান।

বিকেলে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে দুই নেতাই অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তাদের আগ্রহ এবং দুই দেশের অর্থনীতিকে আরও শক্তিশালী করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়ার পাশাপাশি কর্মসংস্থান বৃদ্ধির বিষয়গুলোতে জোর দেওয়ার কথা জানিয়েছেন।

কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক মিলিয়ন মধ্যবিত্ত মানুষের চাকরি দুই দেশের অংশীদারিত্বের ওপর নির্ভর করে।

এই দুই বিশ্বনেতাই জানান তারা উইন্ডসোর এবং ডেট্রয়েটের মাঝে গোর্ডি হোউ ইন্টারন্যাশনাল ব্রিজ নির্মাণে কাজ করবেন। এছাড়া কীস্টোন এক্সএল পাইপলাইন এবং সীমান্তে কার্গো অতিক্রমের পূর্বানুমতির বিষয়ে কাজ করে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন তারা।

দুই নেতা তাদের বিবৃতিতে আরও বলেন, আমরা পূর্বানুমতির বিষয়টি নিয়ে আরও কিছু শহরে  এর পরিধি বাড়াতে চাই।

আফিমাসক্তের কারনে মৃত্যুর পরিমাণ কমানো নিয়ে কাজ করা ছাড়াও আফিম পাচার প্রতিরোধে কাজ করে যাওয়ার কথা জানানো হয় তাদের ওই বিবৃতিতে।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্মিত সুপার হর্নেট এয়ারক্রাফট কেনার আগ্রহ কানাডার পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আইএস এবং লাটভিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রকে সামরিক সহায়তার জন্য কানাডার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানো হয়।

তবে নাফটা চুক্তি, কাঠ রফতানির বিরোধ কিংবা পরিবেশ বিপর্যয়ের বিরুদ্ধে কাজ করার সম্পর্কে কিছুই জানানো হয়নি।

এছাড়া ব্যবসাক্ষেত্রে নারীদের প্রতিষ্ঠিত করতে দুই পক্ষেরই আগ্রহের কথা জানানো হয়।

সিবিসি  নিউজ
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email