নারী, আমি তোমাকেই বেশি ভালোবাসি

2002
AdvertisementLeaderboard

নারী, আমি তোমাকেই বেশি ভালোবাসি

।। নুরুল হুদা পলাশ ।।

বিধাতা আমাকে দিয়েছেন জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ তিনটি উপহার।

জন্ম নেবার আগেই আমায় রক্ত মাংসের প্রথম উপহারের মোড়কে

মুড়িয়ে দিলেন, যে আমাকে ধারণ করলো দশটি মাস

তার ঋৎপিন্ডের একটি অংশ হয়ে গেলো আমার আর আমি পুরোপুরি তার।

জন্ম থেকে জন্মান্তর, কৈশোর, যৌবন, অনাগত বার্ধক্যে সে আমার শুধুই আমার।

মর্তের পৃথিবীতে স্বর্গ থেকে পাওয়া সর্বশ্রেষ্ঠ প্রথম উপহারটি আমার মা।

দ্বিতীয় উপহারটি আমিই খুঁজে পেলাম, যা ছিল শুধু আমারই জন্য।

বর্ণিল আচ্ছাদনে অপরিসীম লালিত্ত্বে যে তার সমস্ত ভালোবাসা

যতন করে রেখেছিলো শুধুই আমাকেই দেবে বলে।

প্রতিদিন ঘুম ভেঙে তারই চেনামুখ, আজন্ম লালিত প্রত্যাশায় যে বিলায় চিরায়ত সুখ

আমার প্রশ্নে ক্লান্তি যাকে স্পর্শ করেনা কখনোই।

ভালোবাসা, বিশ্বাস, নির্ভরতা আর নিশ্চয়তার মোড়কে মোড়ানো সে উপহারটি আমার স্ত্রী।

আবারো দ্বিতীয় উপহারের মোড়কে মুড়িয়েই বিধাতা আমায় পাঠিয়ে দিলেন

সবচেয়ে আরাধ্য, প্রত্যাশিত, মহামূল্যবান আরো একটি উপহার।

একই সাথে আমার হৃদয় আর ঘর দুটোই আলোকিত করে আবিভুর্ত হলো

আমাদের মেয়ে, হয়ে এলো আমাদের সকল সৌভাগ্যের পরশমনি, সকল আনন্দের আধার।

আমার জীবনে তিন প্রজন্মের তিন নারী, তিনটি শ্রেষ্ঠ উপহার।

নারী তুমি মা, তুমি মহিয়সী, নারী তুমি প্রিয়তমা স্ত্রী, তুমি গরীয়সী

নারী তুমি মেয়ে, ভালোবাসা অবিনাশী, নারী, আমি তোমাকেই বেশি ভালোবাসি।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email