বর্ণাঢ্য আয়োজনে কানাডা বাংলা টেলিভিশনের প্রথম বর্ষপূর্তি উদযাপিত

48
Advertisement

সিবিএন ডেস্ক:

বর্ণাঢ্য আয়োজনে কানাডা বাংলা টেলিভিশনের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হলো গত ২৭ নভেম্বর। আমন্ত্রিত অতিথিদের শুভাগমনে সন্ধ্যা ৭ টায় ক্যানবাংলা হলরুম কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর হাইকমিশনার ড. খলিলুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্কারবরো সাউথ-ওয়েস্ট অন্টারিও প্রাদেশিক সংসদের সদস্য ডলি বেগম।

উপস্থিত ছিলেন কমিউনিটির সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনীতিক, ব্যবসায়িক নেতৃবৃন্দসহ প্রিন্ট ও টেলিভিশন মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

স্বাগত বক্তব্যে ক্যানবাংলা টিভির প্রেসিডেন্ট এন্ড সিইও ড. মোঃ হুমায়ুন কবির উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। আমন্ত্রিত অতিথিদের সাথে নিয়ে কেক কেটে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করা হয়।

অনুষ্ঠানের  প্রথম পর্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন অব কানাডার  সভাপতি ড. এম এম তোহা, আবাকান- এর  সাধারণ সম্পাদক হাসমত আরা জুঁই, কুয়েট-এর সভাপতি ইন্জিঃ নওশের আলী, রোটারি ক্লাব অব টরন্টো ড্যানফোর্থের পক্ষে প্রেসিডেন্ট মোঃ হোসেনুজ্জামান, প্রেসিডেন্ট  ইলেক্ট আনোয়ার কবির ও এক্স প্রেসিডেন্ট মুজিবুর রহমান, ব্যারিস্টার রেজওয়ান রহমান,  মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইলিয়াস মিয়া, অন্টারিও আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা কামাল, কানাডা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি আমিন মিয়া, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কানাডার সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনিরুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আহমেদ হোসেন, সাংবাদিক সওগাত আলী সাগর, সাংবাদিক মাহবুব ওসমানী, বিশেষ অতিথি ডলি বেগম ও প্রধান অতিথি ড. খলিলুর রহমান। কানাডা বাংলা টেলিভিশনের পক্ষে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন চীফ এডিটর গাজী সালাউদ্দীন মাহমুদ মিম। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাবেক বাকসু ভিপি ফাইজুল করিম।

বক্তারা কানাডা বাংলা টেলিভিশনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন ও সেই সাথে আশা করেন ক্যানবাংলা মানসম্মত অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশের মুক্তিযুক্ত, সাহিত্য সংস্কৃতি, লোকজ ঐতিহ্য, শিল্পকলা, কৃষ্টিকে তুলে ধরে কানাডায় বড় হওয়া প্রজন্মকে বাংলাদেশ সম্পর্কে একটি ইতিবাচক ধারণা দেবেন।

দ্বিতীয় পর্বে সংগীত ও আবৃত্তির মাধ্যমে দর্শক মাতিয়ে রাখেন, ফারহানা শান্তা, মৌসুমী পুতুল, মানবী মৃধা, হিমাদ্রি রায়, বাবলু হক ও মৈত্রী দেবী।

আপ্যায়ন (ডিনার) পর্বে সহযোগিতায় ছিলেন শেখ জসিম উদ্দিন,  জহির আহমেদ জনু, ইলিয়াস মোল্লা, নুরুল ইসলাম সেলিম, গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email