বহু কাঙ্ক্ষিত মেহমান

2080
AdvertisementLeaderboard

বহু কাঙ্ক্ষিত মেহমান

।। নূরুল হুদা খান পলাশ ।। 

কাল রাত ছিল অসম্ভব সুন্দর একটি রাত

মেঘহীন আকাশে জ্যোৎস্না ছিলনা তবুও আলোকিত চারিদিক

বাতাসে ছিল স্নিগ্ধতা, প্রকৃতি মুগ্ধ ছিল অসম্ভব এক মৌনতায়।

হঠাৎ আমার কলিং বেল বেজে উঠলো

আমিতো ভাবছি কে হতে পারে এই আগন্তক?

সচরাচর এভাবে কেও রাতের বেলা আসেনা আমাদের এখানে।

খুব সন্তর্পনে আমি দরজা খুলে দিলাম।

অপলক আমার দুচোখ, এ আমি কাকে দেখছি আমার দরজায়?

আগন্তক আমার অপরিচিত কেও নয়, আমি তাকে চিনি

বহু কাল, বহুদিন ধরে আমি তাকে চিনি।

তাকে পেয়ে অসম্ভব এক মুগ্ধতায় ভরে গেল আমার মন,

আমি তাকে ভিতরে আসতে সম্ভাষণ জানালাম।

তিনি আমার ঘরে আসতেই কি এক চিরচেনা নির্মল আনন্দে ভরে উঠলো আমাদের ক্ষুদ্র গৃহকোণ।

অতিথিকে নিয়ে আমরা সবাই ব্যস্ত হয়ে পরলাম।

সুদীর্ঘ এক বছর পর তিনি এলেন, তার জন্যে কতনা অপেক্ষা আমাদের।

আমাদের অতিথি কখনই খালি হাতে আসেননা।

আজকেও তার হয়নি ব্যতিক্রম, কত কিযে এনেছেন তিনি।

আসতে না আসতেই আমাদের ঘর কি এক চিরচেনা সুবাসে সুবাসিত

আমার ক্ষুদ্র গৃহকোণটি হয়ে উঠছে অনেক বড়, বিশাল।

অনেকগুলো দিন কি এক অস্বস্তিতে কাটছিল আমাদের

কি যেন নাই, কে যেন নাই, আজকে তার আগমনে আমরা পরিপূর্ণ।

তোমরা হয়তো ভাবছো কে এই মেহমান?

তিনি সুদীর্ঘ একটি মাস আমাদের ঘরকে আলোকিত করে থাকবেন।

তিনি দেবেন মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে অসীম দয়া

আমরা পাবো মহান আল্লাহ তায়ালার ক্ষমা আর সেই সাথে দোজখের আজাব থেকে মুক্তি।

তিনি এনেছেন একটি মহান রাত যা কিনা হাজার রাতের চাইতেও উত্তম।

তিনি আমাদের দীক্ষা দেবেন সংযম, ধৈর্য, শৃঙ্খলা, ত্যাগ আর তিতিক্ষা।

এই মেহমানকে আমরা কোনভাবেই অবহেলা করতে পারবনা,

তিনি যতদিন থাকবেন আমরা তার অমর্যাদা করবোনা।

আমরা কতইনা ভাগ্যবান আবারও আমরা পেয়েছি তাকে আমাদের মাঝে।

আমাদের এই মেহমান প্রতি বছর আমাদের ঘরে আসুন আর আমরা যেনো তার

খেদমতে কোনো রকম কার্পন্য না করি, আমিন।

স্বাগতম মাহে রমজান।

 

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email