বিমানের কাছে ড্যাশ-৮ কিউ-৪০০ বিক্রি করতে চায় কানাডা

150
AdvertisementLeaderboard

কানাডা কমার্শিয়াল করপোরেশন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের কাছে আরও দু’টি স্বল্পপাল্লার ড্যাশ-৮ কিউ-৪০০ উড়োজাহাজ বিক্রির আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলীর সঙ্গে দেখা করে ঢাকায় নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার বেনইত প্রিফনটেইন এ আগ্রহের কথা জানান।

বৈঠকে কানাডিয়ান হাইকমিশনার বেনইত প্রিফনটেইন জানান, কানাডিয়ান কমার্শিয়াল করপোরেশন নতুন উড়োজাহাজ দু’টি ২০২১ সালের মধ্যেই সরবরাহ করতে সক্ষম হবে। কানাডিয়ান হাইকমিশনারের প্রস্তাবের বিপরীতে প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী কানাডাকে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেওয়ার অনুরোধ করেন।

বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মহিবুল হক প্রতিনিধিদলকে বলেন, আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব পাওয়ার পর প্লেন দুটির মূল্য ও অন্য আনুষঙ্গিক বিষয় পর্যালোচনাসাপেক্ষে তা সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশ নতুন উড়োজাহাজ কিনতে পারে।

অভ্যন্তরীণ রুটে ও স্বল্প দূরত্বে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনার জন্য এ বছরই মে-জুন মাসের মধ্যে আগে কেনা নতুন তিনটি ড্যাশ-৮  উড়োজাহাজ ঢাকায় পৌঁছাবে।

কানাডিয়ান কমার্শিয়াল করপোরেশনের এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক মিজ ইভোনি চিন ও ঢাকায় কানাডিয়ান হাইকমিশনের ট্রেড কমিশনার মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কানাডার টরেন্টোতে সরাসরি প্লেন যোগাযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে কানাডার সহযোগিতা চাওয়া হয়। জবাবে কানাডিয়ান হাইকমিশনার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের প্রস্তাবিত ঢাকা-ম্যানচেস্টার-টরেন্টো ও ঢাকা-রোম-টরেন্টো রুটে ফ্লাইট পরিচালনার ক্ষেত্রে কানাডার পক্ষ থেকে ফিফথ ফ্রিডম অব এয়ার দেওয়ার আশ্বাস দেন।

কানাডিয়ান হাইকমিশনার বাংলাদেশের পর্যটনের উন্নয়নে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

বৈঠককালে কানাডিয়ান হাইকমিশনার বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমানে বাংলাদেশ ও কানাডার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অন্যতম ভালো সময় পার করছে।

এসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে কানাডার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডোর সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

সূত্র: বাংলানিউজ ২৪
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email