ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি কানাডিয়ান মোহাম্মদ এহসান

AdvertisementLeaderboard

কানাডার নোভা স্কোশিয়ায় আর্ত মানবতার সেবায় অবদান রাখায় ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি কানাডিয়ান মোহাম্মদ এহসান।

স্বেচ্ছাসেবক সপ্তাহ পালনকালে কানাডার নোভা স্কোশিয়ার প্রভিন্সের রাজধানী হ্যালিফ্যাক্সে গত ২৭শে এপ্রিল আয়োজিত হয় ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান।

হোটেল ডাবলট্রি হিলটনে হ্যালিফ্যাক্স রিজিওনাল মিউনিসিপ্যালিটি (এইচ.আর.এম.) কর্তৃক আয়োজিত এ বিশেষ অনুষ্ঠানে বৃহত্তর জনকল্যাণমূলক কাজে নিবেদিত প্রাণ সেচ্ছাসেবকদের বিশেষ সম্মানসূচক ভলেন্টিয়ার সম্মাননা পুরস্কার ও পিন প্রদান করা হয়। শহরের সমস্ত কাউন্সিলর ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে এ অনুষ্ঠানে পুরস্কার প্রদান করেন মেয়র মাইক স্যাভেজ।

অনুষ্ঠানে এইচ.আর.এম.’এর ১৬ টি ডিস্ট্রিক্ট থেকে বিভিন্ন জনকে তাঁদের জনকল্যাণমূলক অবদানের জন্য পৃথক পৃথকভাবে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়।

স্বেচ্ছাসেবক সপ্তাহ পালনকালে কানাডার নোভা স্কোশিয়ার প্রভিন্সের রাজধানী হালিফ্যাক্সে ২৭ এপ্রিল আয়োজিত হলো ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান।

হোটেল ডাবলট্রি হিলটনে হ্যালিফ্যাক্স রিজিওনাল মিউনিসিপ্যালিটি (এইচআরএম) আয়োজিত এবিশেষ অনুষ্ঠানে বৃহত্তরম জনকল্যাণমূলক কাজেম নিবেদিতপ্রাণ স্বেচ্ছাসেবকদের বিশেষ সম্মানসূচক  ভলেন্টিয়ার সম্মাননা পুরস্কার ও পিন প্রদান করা হয়। শহরের সব কাউন্সিলর ও গণ্যমান্য ব্যক্তির উপস্থিতিতে এ অনুষ্ঠানে পুরস্কার প্রদান করেন মেয়র মাইক স্যাভেজ।

অনুষ্ঠানে এইচআরএমের ১৬টি ডিস্ট্রিক্ট থেকে বিভিন্নজনকে  জনকল্যাণমূলক কাজের অবদানের জন্য পৃথকভাবে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। আগামী সেপ্টেম্বরে নির্ধারিত সময়ে এই সংক্রান্ত অনুষ্ঠানে পুরস্কার তুলে দেয়া হবে।  হালিফ্যাক্সের ডিস্ট্রিক্ট ১০ থেকে এই বিশেষ পুরস্কারপ্রাপ্ত হন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান মোহাম্মদ এহসান। এহসান কোভিড মহামারির শুরু থেকে গত দুই বছরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খাদ্য ও জীবন রক্ষাকারী প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিয়মিতভাবে বিপর্যস্ত জনসাধারণের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন। তিনি হ্যালিফ্যাক্সে বিভিন্ন সরকারি ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের সাথে তাদের বোর্ড সদস্য হিসেবে সম্পৃক্ত। তিনি কিন্ ক্লাব হ্যালিফ্যাক্স, স্কোয়ার রুটস ইনিশিয়েটিভ, ফেয়ারভিউ রিসোর্স সেন্টারের এক্সিকিউটিভ বোর্ডমেম্বার হিসেবেও কাজ করেছেন।

এছাড়া তিনি এইচআরএমের অ্যাক্টিভ ট্রান্সপোর্টেশন কমিটিরও সদস্য। কানাডায় নতুন অভিবাসীদের ভোটাধিকার বিষয়ে তাঁর উদ্যোগে অনেক দিন ধরেই মিউনিসিপ্যাল ও প্রভিন্সিয়াল পর্যায়ে কাজ চলছে। তিনি নোভা স্কোশিয়ায় বিভিন্ন সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর মানবাধিকার নিয়েও কাজ করে আসছেন।

মোহাম্মদ এহসান বাংলাদেশে সিলেটের শাহ্জালাল বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লোক প্রশাসন বিভাগে শিক্ষক ছিলেন। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে তিনি কানাডার হ্যালিফ্যাক্সে দুই সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে বসবাস করছেন। এহসান হ্যালিফ্যাক্সে বৃহত্তর মানবকল্যাণ ও অভিবাসীদের সার্বিক উন্নয়নকল্পে কানাডার মূলধারার রাজনীতি ও বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে সক্রিয় আছেন। তিনি হ্যালিফ্যাক্সের ডালহৌসি ও একাডিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান, কানাডিয়ান রাজনীতি ও লোক প্রশাসন বিষয়ে দীর্ঘকাল শিক্ষকতা করেছেন।

বর্তমানে তিনি নোভাস্কোশিয়া প্রভিন্সিয়াল সরকারের একটি বিভাগে পলিসি অ্যাডভাইজার হিসেবে কর্মরত।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email