সমুদ্রে কমছে অক্সিজেনের পরিমাণ, হুমকির মুখে জলজ প্রাণী

618
AdvertisementLeaderboard

বিশ্বের সমুদ্রগুলোতে গত ৫০ বছরে অক্সিজেনের পরিমাণ ২ শতাংশ কমে গিয়েছে এবং ২১০০ সালের মাধ্যে আরও ৭ শতাংশ কমে যাবে বলে দাবি করা হয়েছে সদ্য প্রকাশিত এক গবেষণায়।

জার্মানির সমুদ্র গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘GEOMAR’ এর করা এই গবেষণাটিই সমুদ্রের অক্সিজেন নিয়ে সূক্ষ্মভাবে করা কোনো গবেষণা। গবেষণায় জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সমুদ্রের অক্সিজেন কীভাবে প্রভাবিত হয়েছে সে বিষয়টি তুলে আনা হয়েছে।

জার্নাল ন্যাচারে প্রকাশিত ওই গবেষণাপত্রে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনই সমুদ্রের পানিতে অক্সিজেন কমে যাওয়ার প্রধাণ কারণ। গবেষকরা বলেন, পানির তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার ফলে এমনটা ঘটছে।

গবেষকরা দেখতে পান যে অক্সিজেন কমার জন্য ১৫ শতাংশ ক্ষেত্রে দায়ী পানির উষ্ণতা। এছাড়া সমুদ্রের উপরিতলের পানি গরম হয়ে আর্কটিকের বরফ গলানোর ফলেও কমছে অক্সিজেনের পরিমাণ।

ফলাফল

গরম পানিতে অক্সিজেনের পরিমাণ কম থাকে এবং ঠাণ্ডা পানির চাইতে এর ঘনত্বও কম থাকে। এরফলে এই পানির সঙ্গে সমুদ্রের নীচের পানির খুব একটা অদল-বদল হয় না।

গবেষণা পত্রের প্রধান লেখক সুনকে স্কামিডকে বলেন, যেহেতু বড় মাছ কম অক্সিজেন সমৃদ্ধ পানি এড়িয়ে চলে এবং অনেকক্ষেত্রে কম অক্সিজেনের পানিতে বাঁচতে পারে না সুতরাং এর ফলে সমুদ্রের জীবের উপর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।

অন্যদিকে বরফ গলনের ফলে পানিতে অধিক পরিমাণে প্লাঙ্কটন এবং পাচক জন্মায় বলেও উঠে এসেছে ওই গবেষণায়। আর এই প্লাঙ্কটনের ফলে সমুদ্রে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যেতে পারে, যার ফলে সমুদ্রে এমন অঞ্চলের সৃষ্টি হতে পারে যেখানকার প্রাণীরা মারা যাবে।

গবেষণাপত্রে বলা হয়, অগভীর জলাধারেও এই জোন তৈরি হতে পারে যেখানে মাছের বৃদ্ধি ঘটে না। এছাড়া এগুলো নাইট্রাস অক্সাইড তৈরি করতে পারে যা জলবায়ু পরিবর্তনে দায়ী।

সিবিসি নিউজ
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email